> সংবাদ শিরোনাম
received_646858700328212

ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যার প্রতিবাদে কাউখালীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর ॥পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার শিয়ালকাঠি ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মামুন হাওলাদারকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার প্রতিবাদ ও হত্যাকারিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধিবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদ চত্বরের সম্মুখ সড়কে উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধির ব্যানারে ওই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

ঘন্টাব্যাপী ওই মানববন্ধনে উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধিদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ নানা শ্রেনীপেশার মানুষ অংশ নেয়।
মানববন্ধনে এমন নৃশংস হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ ও এঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করে বক্তব্য রাখেন, কাউখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ মনু মিঞা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মৃদুল আহম্মেদ সুমন, কাউখালী সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান, চিরাপাড়া পারসাতুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান লাইকুজ্জামান মিন্টু, শিয়ালকাঠি ইউপি চেয়ারম্যান সিকদার মো. দেলোয়ার হোসেন, সয়না রঘুনাথপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ, আমরাজুরী ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন তালুকদার, জাতীয় পার্টি’র (জেপি) সাধারন সম্পাদক মঞ্জুরুল পায়েল, ইউপি সদস্য মাহমুদ হোসেন ও রুস্তুম আলী প্রমুখ।

মানববন্ধন শেষে এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ ও হত্যাকারীদের বিচার দাবী করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা খাতুন রেখার মাধ্যমে একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

প্রসঙ্গত গত সোমবার ইউপি সদস্য মামুন নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলে কাউখালি উপজেলার শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন পরিষদে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে ভাণ্ডারিয়া উপজেলার উত্তর ভিটাবাড়িয়া এলাকার আজহারিয়া দাখিল মাদ্রাসা কাছে পৌছুলে সেখানে পূর্ব থেকে ওৎপেতে থাকা দুর্বৃত্তরা রাস্তায় গাছ ফেলে তার গতিরোধ করে। পরে দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মামুনের বাম পা বিচ্ছিন্ন করে তাকে হত্যা করে।

দুর্বৃত্তরা মামুনের বিচ্ছিন্ন পা ডোবার পানিতে ফেলে দেয় এবং মামুনের মৃত্যু নিশ্চিতের পর লাশ একটি কালভার্টের উপর ফেলে রেখে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে তারা। খবর পেয়ে পুলিশ দুপুরে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

পরে এ বিষয়ে নিহতের ছেলে মেহেদী হাসান বাদী হয়ে শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান গাজী সিদ্দিকুর রহমান সহ ১১ জনকে নামীয় এবং অজ্ঞাত আরও ৫/৬ জনকে আসামী করে ভাণ্ডারিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলায় অভিযুক্ত এজাহার নামীয় আসামী সজল জমদ্দার ও মামুন ওরফে টাকলা মামুন নামের দুইজনকে গ্রেফতার করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful