স্বরূপকাঠিতে বাল্যবিয়ের দায়ে বর ও কনে পক্ষকে জরিমানা

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুরঃ
পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে স্কুল পড়–য়া এক ছাত্রীকে বাল্য বিয়ে দেয়ার অপরাধে বর ও কনে উভয় পক্ষকে ১০ হাজার টাকা করে মোট ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

বুধবার রাতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. বশির গাজী এ জরিমানা করেন। জানাগেছে, বুধবার রাতে উপজেলার জলাবাড়ির গ্রামের পুনম দাসের মেয়ের সঙ্গে বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জের সুজিত দাসের ছেলে সমির দাসের সাথে বাল্য বিয়ের আয়োজন চলছিল। গোপন সংবাদ পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বশির গাজী রাতেই পুলিশের সহায়তায় বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হন। কিন্তু তিনি বিয়ে বাড়িতে পৌঁছার আগেই বিয়ের কার্য সম্পন্ন হয়। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বশির গাজী তাৎক্ষনিক ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনে বরের ভাই প্রসেনজিৎ দাসকে ১০ হাজার টাকা এবং কনের বাবা পুনম দাসকে ১০ হাজার টাকা করে মোট ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এসময় উভয় পক্ষের অভিভাবকরা কনে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বর-কনে একে অপরের বাড়িতে আসা যাওয়া না করার মুচলেকা দেন।

নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বলেন বাল্যবিবাহ নিরোধে অভিযান অব্যাহত থাকবে।