বাড়তে পারে ‘বৃষ্টি’ তবে মাসের শেষদিকেঃ আবহাওয়াবিদ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ চলতি মাসের শেষ দিকে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান খান।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, চলতি সপ্তাহ ধরে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে। আরও কয়েকদিন তাপমাত্রা সামান্য বাড়বে; সেই সঙ্গে বিস্তারও ঘটবে।

“রাজধানীসহ দেশের কোথাও কোথাও হালকা বৃষ্টি হচ্ছে। টানা বৃষ্টি না থাকায় মেঘলা আবহাওয়ায় ভ্যাপসা গরম অনুভূত হচ্ছে বেশ। চলতি মাসের শেষ দিকে বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে।”

ঢাকা, রাজশাহী, পাবনা, রাঙামাটি, চাঁদপুর, মাইজদীকোর্ট, ফেনীসহ ঢাকা ও ময়মনসিংহের দুয়েক জায়গায় মৃদু তাপপ্রবাহ বইছে।

সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে ৩৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস; ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৩৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগেরদিন রোববার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাঙামাটিতে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময় ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গত ২৫ এপ্রিল চলতি মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয় যশোরে । ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- ময়মনসিংহ, সিলেট, রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা কিংবা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধবৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে ।

সেই সাথে সারা দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি বর্ষণ হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যান্য স্থানের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

মে মাসের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- দেশের পশ্চিমাঞ্চলে একটি তীব্র এবং সারাদেশে ১-২টি মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এ মাসে দেশের উত্তর-মধ্যাঞ্চলে ২-৩দিন বজ্রসহ বৃষ্টি ও কালবৈশাখী ঝড় এবং অন্যত্র ৫-৭ দিন শিলাবৃষ্টিসহ কালবৈশাখী হতে পারে।