ভোলার আলিনগরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাটালিয়ান সদস্য সহ ৩ জনকে পিটিয়ে জখম

ভোলা প্রতিনিধিঃ ভোলার আলিনগর পন্ডিতের পোল বাজারে তুচ্ছ ঘঠনাকে কেন্দ্র করে এক পরিবারের তিন সদস্য কে পিটিযে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এঘটনায় ছুটিতে বাড়িতে আসা আব্দুল মান্নান এর ছেলে ব্যাটালিয়ান সদস্য নুর নবী (৩৪) জাবেদ (১৪) ও বৃদ্ধ আব্দুল মান্না কে লাটি সোঠা দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষ গ্রুপ হারুন মিঝির ছেলে শিয়াব(২৪) নেতৃত্বে আসা মৃত মুসলিম মিঝির ছেলে আব্দুল হাই(৪২) রফিক মিঝির ছেলে মিলন,রফিক মিঝি,হারুন মিঝি,সুজন, রাসেল হীরন,গিয়াসউদ্দিন, আব্বাস গংরা।

এক পরিবারের বাপ ছেলে সহ আহত হওয়া তিন সদস্য কে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করান স্থানীয়রা।

রবিবার ২৭ তারিখ বিকাল ৩ ঘটিকার সময় আলিনগর পন্ডিতের পোল বাজারে শাহাজানের দোকানের সামনে দুই চাচাতো ভাই ও তার ভাতিজার মধ্যে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

ঘটনায় ভুক্তভোগী আব্দুল মান্নান প্রতিবেদক কে জানান,রবিবার বিকাল আনুমানিক ৩ টার সময় আমার দোকানের সামনে আমার ভাতিজা শিয়াব চা নিতে আসলে আমি তাকে বলি কিরে তিন সন্তানের মাকে কেমনে প্রেম করে বিয়ে করলি এটা ঠিক করোছ নাই। এই কথা বলার পরে সে কোন কথা না বলে বাসায় গিয়ে আমার স্ত্রীর কাছে গিয়ে বিচার দেয় এবং খারাপ গাল মন্দ করে লাঠি সোডা নিয়ে আমার ঘরে আঘাত করলে তখন ঘরে থাকা আমার ছেলে ছুটিতে আসা ব্যাটালিয়ান সদস্য নুর নবী এগিয়ে আসলে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে তাকে শিয়াব তার জনবল নিয়ে লাঠি দিয়ে আমার ছেলেকে আঘাত করে। আঘাত করলে আমার ছেলের ডাক চিৎকার শুনে আমি দোকান থেকে বের হয়ে বাসায যাওয়ার পথে বাজারে ই আমাকে এবং আমার ছোট ছোট ছেলে কে এলোপাতাড়ি মারধর করে মাঠিতে ফেলে দেয়।

স্থানীয়রা আমাদেরকে এই সন্ত্রাসী লাঠিয়ালি বাহিনী ও ভুমিদস্যুদের কাছ থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করান।

এদিকে বিবাদি শিয়াবের সাথে ঘটনা স্থলে গিয়ে কথা হলে তিনি জানান,আমাকে মানুষের সামনে এমন কথা বলায় আমি লজ্জা পাই তাই মাথা গরম হওয়ায় আমি এ কাজ করিছি।

এব্যাপারি ব্যাটালিয়ান সদস্য নুরনবী জানান আমি সুস্থ্য হয়ে ভোলা থানায় মামলা করবো মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।
স্থানীয় চেয়ারম্যান বশির আহমেদ এর সঙ্গে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি জানান মারা মারির ঘটনা শুনেছি আমি উভয়কে সুস্থ্য হয়ে আমার কাছে আসতে বলেছি আমি ঘটনা পুরা পুরি শুনে সমাধান করার চেস্টা করে দিবো যদি তারা আমার বিচার মানে আর না মানলে আইনের আশ্রায় নিবে।