পনেরো বছরের পরিবর্তে আট বছরে পেনশন পুনঃস্থাপনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

সাকিবুল ইসলাম সুজন(মিরপুর)ঃ অবসরের ১৫ বছরের বদলে ৮ বছর পর পেনশন পুনঃস্থাপনের দাবি জানিয়েছেন শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী গ্রুপ।

রোববার (১৪ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান সংগঠনের নেতারা।

আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকার ২০১৮ সালের ৮ অক্টোবর একটি প্রজ্ঞাপনে শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী কর্মচারীদের অবসরের ১৫ বছর পেনশন পুনঃস্থাপন করা হয়। আমরা এ সময়কাল ৮ বছরে পুনঃস্থাপনের দাবি জানাচ্ছি। কারন অবসরের পর ১৫ বছর পর আমাদের বয়স হবে ৭৫ বছর যেখানে আমাদের দেশের গড় আয়ু ৭২ বছর সেখানে ৭৫ বছর পর্যন্ত বেঁচে থেকে পেনশন পুনঃস্থাপনের সুফল ভোগ করা সম্ভব নয়। তাই বেঁচে থেকে পেনশন ভোগ করার জন্য ৮ বছরে পেনশন পুনঃস্থাপনের আবেদন করছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

যুগ্ম -আহ্বায়ক লতিফুল আজম বলেন শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী আমাদের অনেক সহকর্মী বেঁচে নেই, অনেকে বিদ্যাশ্রমে আছে, অনেকে ঠিকমত বাজার করে খেতে পারে না অর্থাভাবে, অনেকে মানবেতর জীবনযাপন করছে। তাই মানবিক দিক বিবেচনা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আকুল আবেদন স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষে আমাদের ১৫ বছরের পরিবর্তে ৮ বছরে পেনশন পুনঃস্থাপনের ব্যবস্থা করে দিবেন।

এছাড়াও সংবাদ সম্মেলনে  ড. মঈন উদ্দীন আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা রঞ্জিত কুমার বিশ্বাস, ইনতাজ আলী, সোহরাব হোসেন খান বক্তব্য রাখেন এবং কেনো তারা ১৫ বছরের পরিবর্তে ৮ বছরে পুনঃপেনশন পাওয়ার আবেদন করছেন সেই যুক্তি তুলে ধরেন।  আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা আবদুল ওয়াহাব, সদস্য মীর সেলিম, মাহফুজুর রহমান, রওশন রেজা, রেজওয়ানুল ইসলাম মুকুল, ইনতাজ আলী প্রমুখ।