স্বরূপকাঠি পৌরসভা নির্বাচনে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন কৃষ্ণ

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি পৌরসভা নির্বাচনে ১ নং ওয়ার্ডে প্রথমবার কাউন্সিলর প্রার্থী হয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন তরুন প্রার্থী কৃষ্ণ কান্ত দাস। নির্বাচনে তিনি পাঞ্জাবী প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। স্বরূপকাঠির উপজেলা পরিষদ সহ পৌরসভার সকল অফিস হওয়ায় ওই ওয়ার্ডে হওয়ায় ওয়ার্ডটি অতি গুরুত্বপূর্ন। অবস্থানের দিক বিবেচনায় ওয়ার্ডটি অতি গুরুত্বপূর্ন হলেও এখানে কাংঙ্খিত উন্নয়ন সাধিত হয়নি। এখানকার বর্তমান কাউন্সিলর পৌরসভার প্যানেল মেয়র রতন দত্ত। পৌরসভা গঠনের পর থেকে তিনি ওই ওয়ার্ড থেকে বার বার নির্বাচিত হয়ে আসছেন। কিন্তু এবারের নির্বাচনে নানাবিধ কারনে অনেক ভোটাররা তার প্রতি বিরাগভাজন হয়েছেন। এ নির্বাচনে ওই ওয়ার্ড থেকে ৫ জন কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করছেন। কৃষ্ণ ওই ওয়ার্ডের শিক্ষক বাদল দাসের ছোট ছেলে। ইতিমধ্যে কৃষ্ণ এলাকায় গরিব দরিদ্র অসহায় মানুষদের শিক্ষা, চিকিৎসায় এবং ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে আর্থিক সহায়তা প্রদান, তরুন ও যুবসমাজকে মাদক থেকে দুরে রাখেতে ক্রীড়াঙ্গনে অনুদান প্রদান সহ নানা ধরনের জনকল্যানমূখী সেবামূলক কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত করছেন। সদা হাস্যোজ্জল তরুন মেধাবী এই নেতা ইতিমধ্যে তার কর্মকান্ডের মাধ্যমে এলাকার ভোটারদের মন জয় করে নির্বাচনের মাঠে শক্ত অবস্থান তৈরি করেছেন। নির্বাচনে কৃষ্ণ বষস্কদের পাশাপাশি এলাকার তরুন ও যুবকদের নিয়ে তার নির্বাচনী এলাকায় ব্যাপক গনসংযোগ ও উঠান বৈঠক করে যাচ্ছেন।
এ ব্যাপারে প্রার্থী কৃষ্ণ কান্ত দাস বলেন, আমাদের এই ওয়ার্ডটি স্বরূপকাঠি পৌরসভার একটি অতিগুরুত্বপূর্ন ওয়ার্ড হওয়া সত্বেও এখানে রাস্তাঘাট, ড্রেনেজ সহ নানা ধরনের সমস্যা রয়েছে। আমি বিভিন্ন সময় এবং করোনাকালে এলাকার মানুষদের পাশে দাড়িয়েছি। এলাকার মানুষের দাবীর পেক্ষিতেই আমি এ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি। আমি নির্বাচিত হতে পারলে এলাকার মুরব্বিসহ তরুন ও যুবদের সাথে নিয়ে অত্র ওয়ার্ডকে মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিংমুক্ত একটি আধুনিক উন্নত ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলব।