মদের বারের মতো করেই গির্জা খোলা হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ   সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়া করানোভাইরাসের ভয়াল থাবার শিকার হয়েছে ল্যাটিন আমেরিকার দেশগুলো। তবে সংক্রমণের ও মৃত্যুর হারে কিছুটা ভালো অবস্থানে রয়েছে আর্জেন্টিনা। লকডাউন কাটিয়ে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে সবকিছু, খুলছে স্কুল, শপিং মল, রেস্টুরেন্ট, বারসহ সব ধরনের প্রতিষ্ঠান ও কর্মক্ষেত্র।

গির্জাসহ সকল প্রার্থনা কেন্দ্রও বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। তবে সরকারি এই নির্দেশনা ভঙ্গ করে এক অভিনব পদ্ধতিতে গির্জা খুলেছে একটি গির্জার ধর্মযাজক।

গত সোমবার থেকে আর্জেন্টিনার সান্তা ফি প্রদেশে মদের বার সকাল ৭টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত খোলার রাখার অনুমতি দিলেও গির্জা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে প্রাদেশিক সরকার। তাই সরকারি নির্দেশনার বিপক্ষে প্রতিবাদ করতে ‘প্রার্থনা বার’ খোলা হয়েছে। তবে সেটা পুরোপুরি মদের বারের মতো করে। টেবিলে বসে আছেন আগ্রহীরা। যাজকের পোশাক ছেড়ে বারের পরিচারকের পোশাক পরে গ্ল্যাসের ট্রেতে করে বাইবেল এনে তাদের পড়ে শোনাচ্ছেন ধর্মযাজকরা। এভাবেই মদের বারের আদল গির্জা খোলা হয়েছে।

সান লরেঞ্জো শহরে অবস্থিত এই গির্জাটির ধর্মযাজক ডেনিয়েল কাতানিও ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্যা গার্ডিয়ানকে বলেন, ‘ট্রে হাতে এ রকম পোশাকে আমরা আজ এখানে উপস্থিত হয়েছি কারণ ঈশ্বরের বাণী প্রচারের জন্য এটাই একমাত্র পথ।’

আর্জেন্টিনায় সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে রাজধানী বুয়েন্স আয়ারসে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ৩০ হাজার ২৯৫ জন এবং মারা গেছেন ৮১৫ জন