ভোলায় র‍্যাবের অভিযানে অস্ত্র ও মাদকসহ ৩ শীর্ষ সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার

শামীম আহাম্মেদ:ভোলায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি ও মাদক দ্রব্যসহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮, এসময় তাদের কাছ থেকে একটি একনলা বন্দুক, দুটি ওয়ান শুটার গান, পাঁচ রাউন্ড কার্তুজ ও ৩৪ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে সর্বনিম্ন ৫টি থেকে ২০টি পর্যন্ত মামলা রয়েছে। র‌্যাব জানায়, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৮, ভোলা ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল ২০ জুলাই রাতে ভোলা সদর থানাধীন দক্ষিণ রাজাপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এসময় সেখান থেকে অস্ত্রধারী তিন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করে তারা।গ্রেফতারকৃতরা হলেন সদর থানাধীন দক্ষিণ রাজপুর এলাকার বাসিন্দা মৃত আজিজুল হক এর ছেলে মো. রফিকুল ইসলাম (৫৫), একই এলাকার মৃত মোশাররফ হোসেন হাওলাদারের ছেলে মো. হাবিবুর রহমান বাচ্চু হাওলাদার (৪৫) ও মৃত আব্দুর রব সর্দারের ছেলে মো. ভূট্টো সর্দার (৪৫)। এদের মধ্যে মো. রফিকুল ইসলামের নামে ভোলা সদরসহ বিভিন্ন থানায় বিভিন্ন অপরাধে ২০টি মামলা রয়েছে। তার কাছ থেকে একটি একনলা বন্দুক, একটি ওয়ান শুটার গান, তিন রাউন্ড কার্তুজ ও ২০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। এছাড়া গ্রেফতারকৃত অপর সন্ত্রাসী মো. হাবিবুর রহমান বাচ্চু হাওলাদারের বিরুদ্ধে সদর থানাসহ বিভিন্ন থানায় ৫টি মামলা রয়েছে। তার কাছ থেকে একটি ওয়ান শুটার গান, দুই রাউন্ড কার্তুজ ও ১৪ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া গ্রেফতারকৃত মো. ভুট্টো সর্দারের নামে ভোলা সদর থানাসহ বিভিন্ন থানায় ১৩টি মামলা রয়েছে। র‌্যাব জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃত তিনজনই শীর্ষ সন্ত্রাসী। তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, খুন, ধর্ষণ, গণধর্ষণসহ কয়েকটি মামলায় ওয়ারেন্ট রয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা এসব অপরাধের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। এই ঘটনায় র‌্যাব-৮ এর একজন ডিএডি বাদী হয়ে ভোলা সদর থানায় রফিকুল ইসলাম ও মো. হাবিবুর রহমান বাচ্চু হাওলাদারের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক মামলা দায়ের করেছেন। এছাড়া ভূট্টোকে ওয়ারেন্ট মূলে ভোলা সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে ওই তিন সন্ত্রাসীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।