ফ্রান্সে মহানবী (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে কেরাণীগঞ্জে ওলামায়ে কেরাম ও তৌহিদি জনতার বিক্ষোভ মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার – ফ্রান্সে মহানবী (সঃ )কে ব্যঙ্গচিত্রর প্রতিবাদে কেরাণীগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে কেরাণীগঞ্জের সকল ওলামায়ে কেরাম ও তৌহিদী জনতা।

দেশব্যাপী কর্মসূচী পালনের অংশ হিসেবে তৌহিদী জনতার আয়োজনে ৩০ অক্টোবর শুক্রবার বাদ জুম্মা দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জের কদমতলীস্থ বীরমুক্তিযোদ্ধা নূর ইসলাম কমান্ডার চত্বর এলাকা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহরতলীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে ফের কদমতলীতে এসে এক সমাবেশে রূপ নেয় ।

এ সময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়। পরে মুফতি আসাদুল্লাহ তানজিল এর সঞ্চালনায় চুনকুটিয়া চৌধুরীপারাস্থ বাইতুল ফালাহ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মুফতি মো. আবু সাঈদের সভাপতিত্বে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইত্তেহাদুল ওলামায়ে কেরাম কেরাণীগঞ্জের সভাপতি মাওলানা মো.লোকমান সাদী,সহ-সভাপতি মুফতি মো.আবু তাহের,সাধারন সম্পাদক মাওলানা ফজলুল বারী, মাওলানা আবদুল সাত্তার, মাওলানা ইয়াহিয়া মাওলানা তানজিল প্রমুখ।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা সংসদে নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপন করা, বাংলাদেশ থেকে ফ্রান্সের দূতাবাস সরিয়ে দেয়াসহ ৬দফা দাবি জানান এবং দাবি বাস্তবায়ন না হলে আরো কঠোর কর্মসূচির হুশিয়ারও দেন। দাবিগুলো হলো, বাংলাদেশস্থ ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত কর্তৃক নবী সা. এর বিরুদ্ধে অবমাননাকর ব্যঙ্গচিত্র প্রচার বন্ধ করতে নির্দেশ প্রদান করতে হবে এবং মুসলিম বিশ্বের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে।

২ ফ্রান্সে বসবাসকারী মুসলমান নারী পুরুষের উপর জুলুম নির্যাতন বন্ধ করে তাদের ধর্ম পালনের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে ও বন্ধ করে দেয়া মসজিদ মাদরাসা খুলে দিতে হবে।

৩ ফ্রান্সের সাথে সকল প্রকার আমদানি-রফতানি বন্ধ করে, তাদের সকল প্রকার পণ্য বর্জন করতে হবে।

৪ আগামী সংসদ অধিবেশনে এদেশে ইসলাম ধর্ম, আল্লাহ রাসূল, সাহাবায়ে কেরামের নামে সমালোচনা এবং কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য ও লেখালেখি নিষিদ্ধের আইন পাস করতে হবে।

1b7aae3e4e175a3cd6aab2eea2b863a9.0 ৫ যে সকল সোস্যাল মিডিয়ায় নবী-রাসূল, সা.ব্ব মসজিদ মাদরাসা এবং আলেমদের বিরুদ্ধে অবমাননা করে, সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে তাদের আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে

৬ নির্যাতন ও ধর্ষণরোধে নারীদের সম্মানজনক কর্মস্থল, নিরাপদে চলাচল, ইসলাম শরীয়ায় পর্দা বিধান ও শালীন পোষাক পরিধানের বিধান করে আইন পাশ করতে হবে। এসব দাবি না মানলে কঠোর কর্মসূচির হুমকি দেন তারা। এসময় মুফতি আবুল বাশার রেজওয়ান, মুফতি আবুল খায়ের ভৈরবী, মুফতি মুহসিন উদ্দিন ওবায়দী, মুফতি আশরাফ আলী নূরীসহ কেরানীগঞ্জের সর্বস্তরের ওলামায়ে কেরাম ও তৌহিদি জনতা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ১৬ অক্টোবর প্যারিসের উপকণ্ঠে দেশটির এক স্কুল শিক্ষকের শিরচ্ছেদ করে ১৮ বছর বয়সী এক কিশোর। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর বিতর্কিত কার্টুন শিক্ষার্থীদের প্রদর্শনের কারণে ক্ষুব্ধ ওই কিশোর স্কুল শিক্ষককে হত্যা করেন। পরে ফ্রান্সের সরকার ওই স্কুল শিক্ষককে দেশটির সর্বোচ্চ মরণোত্তর পদকে ভূষিত এবং বিভিন্ন ভবনের গায়ে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর বিতর্কিত সেই কার্টুনের প্রদর্শন শুরু করে। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ’র রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় এই কার্টুন প্রদর্শনের ব্যবস্থার নির্দেশ দেন। ফরাসি প্রেসিডেন্টর এই অবস্থানের প্রতিবাদে আরব উপসাগরীয় অঞ্চলসহ মুসলিম বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ফ্রান্সের পণ্য বর্জনসহ নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।