পাইকগাছায় সেই যুবলীগ নেতা আজিজুল এর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধিঃপ্রধানমন্ত্রী, দু এমপি কে নিয়ে আ, লীগ নেতার সাথে যুবলীগ নেতার বিরুপ মন্তব্য পত্রিকায়, মোবাইলে ভাইরাল ও সামাজিক যোগাযোগ মাধমে প্রকাশ হওয়ার ঘটনায় অবশেষে আদালতে মামলা হয়েছে ।এ দিকে যুবলীগনেতা আজিজুল হাকিম ফেসবুক ও প্রেসবিজ্ঞপ্তি দিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার চাদখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুনছুর আলী গাজী উপজেলা যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য এম এম আজিজুল হাকিম গত ৮/৮/২০ তারিখে মোবাইল ফোনে কথোপকথনে আজিজুল বলেন আমি প্রধানমন্ত্রীর দল করি না, এমপি আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু ভাইয়ের দল করি, সাবেক এমপি আলহাজ্ব এড শেখ মোঃ নুরুল হক (প্রয়াত) ও এড. সোহরাব আলী সানা কে নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করে । এঘটনা পত্রিকা, ফেসবুকে ভাইরাল সহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হয়। এঘটনায় উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির ১০/৮/২০ জরুরী সভা করে আজিজুল হাকিম কে বহিষ্কারের প্রস্তাব এনে জেলায় প্রেরন করে । অপর দিকে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও জরুরী সভা করে যুবলীগের সভার সিদ্ধান্তের সহিত একমত পোষণ করে জেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা যুবলীগের কাছে বহিষ্কারের সুপারিশ করেছে।এসব বিষয়ে উপজেলার গোয়ালবাথান গ্রামের বঙ্গবন্ধু প্রেমিক সুকুমার চন্দ্র ঢালী মামলা করার প্রস্তুতি নিলে এখবর আজিজুল জানতে পেরে শনিবার সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের অফিসের পাশে পেয়ে ৭/৮ জন লোক নিয়ে সুকুমার চন্দ্র ঢালীকে চড়,কিল,ঘুষি মেরে আহত ও বিভিন্ন হুমকি দিয়ে চলে যায় । চাঁদখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আলহাজ্ব মুনছুর আলী গাজী সুকুমার কে মামলা করার ক্ষমতা অর্পন করেন । সেই ক্ষমতা বলে সুকুমার চন্দ্র ঢালী বাদী হয়ে এম এম আজিজুল হাকিম কে আসামী করে পাইকগাছা উপজেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে রবিবার মামলা দায়ের করেন।বিজ্ঞ আদালত মামলাটি শুনানি অন্তে ওসি পাইকগাছা থানা কে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার আদেশ দেন । আদালতের মামলা নং সি,আর -৩০৬/২০। এদিকে এম এম আজিজুল হাকিম দু দিন আগে তার ফেসবুকে ও প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ ধরনের ফোনালাপ অনাকাঙ্ক্ষিত ভুল স্বীকার পূর্বক ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন।