দৌলতখান ছাত্রদলের বিতর্কিত কমিটি বাতিলের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

ভোলা প্রতিনিধিঃ ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলায় নব গঠিত ছাত্রদলের বিতর্কিত আহবায়ক কমিটির বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ এনে তা বাতিলের দাবিতে পদ বঞ্চিতরা সংবাদ সম্মেলন করেছেন ।

শুক্রবার বিকেল পাঁচটার দিকে ভোলা সদরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে এ সংবাদ সম্মেলন করেন তারা। দৌলতখান উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে জড়ো হওয়া শতাধিক নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে লিখিত বক্তব্যে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘদিন ঝুলে থাকার পর গত ১৮ আগষ্ট দৌলতখান উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি ঘােষণা করে জেলা
ছাত্রদল। কিন্তু নবগঠিত এই আহবায়ক কমিটিতে ছাত্রদলের নীতিমালা ভঙ্গ করে নেশাগ্রস্থ, বিবাহিত, ছাত্রলীগ সম্পৃক্ত ও আত্মীয়দেরকে পদ দেয়া হয়েছে। যা দেখে আমরা দৌলতখান উপজেলা ছাত্রদলের কর্মীরা চরম হতাশ ও ক্ষুদ্ধ। কারন ওই কমিটিতে যােগ্য এবং ত্যাগী কর্মীদের রাখা হয়নি। এমনকি সরকার বিরােধী আন্দোলনে যারা রাজপথে সক্রিয় থেকে হামলা-মামলা, জেল-জুলুম, নির্যাতনের স্বীকার হয়েছে তাদের কাউকেই এই কমিটিতে রাখা হয়নি। বরং যাদেরকে দিয়ে কমিটি সাজানো হয়েছে তাদের অনেকে ওয়ার্ড পর্যায়ে ছাত্রদল করার যােগ্যতাও রাখে না।
তারা আরো বলেন, নব গঠিত কমিটির আহবায়ক মির্জা মনিরুল ইসলাম একজন নেশাগাস্থ, ১ নং যুগ্ম
আহবায়ক জাফরউল্লাহ দক্ষিণ জয়নগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটিতে এখনও জড়িত, ২ নং যুগ্ম আহবায়ক মাে. রাশেদ একজন মােবাইল সার্ভিস হােল্ডার।
উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি কালা জহির আত্নীয়করণ ও টাকা নিয়ে এ কমিটি জমা দিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তারা।
বিতর্কিত এ কমিটির অনুমোদন দেওয়ার জন্য ভোলা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পদত্যাগও দবি করেন তারা। পরে তারা নবগঠিত কমিটির তালিকা ছিড়ে ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানান। পাশাপাশি নব গঠিত আহবায়ক কমিটির ২১ সদস্যকে দৌলতখানে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মো. আব্বাস উদ্দিন, মো. নাহিদুল ইসলাম, মো. মামুন অর রশিদ, মো. সোহান, মো. সনজিব মৃধা, মো. মিঠু, মো. সজিবসহ শতাধিক নেতাকর্মী।