দিনাজপুর পৌরসভায় উন্নয়নের স্বার্থে রাশেদ পারভেজকে বিজয়ী করার আহবান

       সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সম্মিলিত নাগরিক মঞ্চ             দিনাজপুর এর ব্যানারে এই আহবান জানানো হয়।

শিমুল, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ“পরিবর্তনের লক্ষে পৌর নাগরিক“ এবং রাশেদ পারভেজকে নৌকায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার শ্লোগান নিয়ে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করেছে সম্মিলিত নাগরিক মঞ্চ দিনাজপুর।

৮ জানুয়ারী শুক্রবার সকালে সম্মিলিত নাগরিক মঞ্চ দিনাজপুর ব্যানারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনটির সদস্য সচিব রেজাউর রহমান রেজু।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দেড়শত বছরের পুরাতন ঐতিহ্যবাহী দিনাজপুর পৌরসভা যোগ্য নেতৃত্ব সংকটের কারনে ময়লার ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। এখানে বসবাসকারী ১ লাখ ৫৩ হাজার ৩৪৩ জন মানুষের মধ্যে পৌর পরিষদের নাগরিক সুবিধা প্রাপ্তির জন্যে প্রত্যেক নির্বাচনে ভোট প্রদানকারী ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৩০ হাজার ৮০৩ জন। দিনাজপুর পৌর শহর ব্যতিত সদরের বিভিন্ন এলাকা রাস্তা-ঘাট,ব্রীজ র্ক্লাভাট আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়নের অকল্পনীয় উন্নয়ন হয়েছে।

অথচ গত ১০ বছরে অর্থাত ২০১১ সাল থেকে দুই মেয়াদে নির্বাচিত বর্তমান মেয়রের অযোগ্যতার কারনে দিনাজপুর পৌরসভায় কোনো নাগরিক সুবিধার উন্নয়নের ছোয়া লােেগনি। পৌর সভা এলাকার রাস্তা-ঘাট,ড্রেন, এবং হাট-বাজার ময়লার ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। শহরের অলিগলির রাস্তায় বৈদুতিক বাল্ব শুন্য থাকায় রাতে অন্ধকারে নিমজ্জিত থাকে কোনো কোনো মহল্লা। পৌর মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম বিএনপি মতাদর্শের হওয়ায় স্থানীয় এমপির প্রভাবের কারনে সরকারের পক্ষ হতে উন্নয়নের কোনো অর্থ বরাদ্ধ দিচ্ছে না। আমরা মনে করি এটি মেয়র জাহাঙ্গীরের মিথ্যাচার নইলে পার্শ্ববর্তী পার্বুতীপুর,ঠাকুরগাঁ এবং পঞ্চগড় পৌরসভায় এত উন্নয়ন কিভাবে হলো।

এই মেয়র উন্নয়নের জন্য বরাদ্ধকৃত অর্থ কেন ফেরত যায় সে বিষয় বর্তমান মেয়র পরিষদের কোনো সভায় জবাবদিহি করেন নাই।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের মহাসড়কে সম্পৃক্ত হতে হলে আমাদের তার মনোনিত প্রার্থী রাশেদ পারভেজকে বিজয়ী করতে পারলে আমরাও উপকৃত হবো,তাই দলমতের উর্ধ্বে উঠে উন্নয়ন পেতে আমরা সবাই দিনাজপুর পৌরসভায় নৌকা প্রতীকে ভোট দেই।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন,সম্মিলিত নাগরিক মঞ্চের আহবায়ক এমবি আখতার, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি চিত্ত ঘোষ, রবিউল আউয়াল খোকা, প্রেসক্লাবের সা: সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, কানিজ রহমান, বিশ্বনাথ সিং, শহিদুল ইসলাম, তারেকুজ্জামান তারেক,রহমতুল্লাহ রহমত, শ্রীমতি রত্না মিত্র প্রমুখ।