কেরানীগঞ্জে গৃহবধূ ফাতেমা হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধিঃ গতকাল শুক্রবার বিকেল ৪টায় কদমতলী বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর ইসলাম কমান্ডার চত্বরের সামনে সূর্য সিড়ি সমাজ কল্যাণ সংগঠন ও মাসিক পত্রিকার উদ্যোগে ল সারাদেশে চলমান শিশু ও নারী ধর্ষণ, খুন এবং কেরানীগঞ্জের খোলামোড়া জিয়ানগর এলাকায় নির্মমভাবে ফাতেমা আক্তার বাবলী(৩০)কে গলা কেটে হত্যার প্রতিবাদে ও আসামীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তরারা বলেন, সারা দেশে নারী ও শিশুদের ধর্ষণ ও হত্যা ভয়াবহভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশের সার্বিক পরিস্থিতি খারাপের দিকেই চলে যাচ্ছে। ধর্ষকদের অমানবিককান্ডে সরকার তথা দেশের ভাবমূর্তি ব্যাপকভাবে ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। কেরানীগঞ্জের জিয়ানগর এলাকায় নিজ বাড়িতে গৃহবধূ ফাতেমা আক্তার বাবলীকে নির্মমভাবে গলা কেটে হত্যা করার পর টাকা, মোবাইল ও স্বর্ণালংকার লুট করে এবং গুম করতে ব্যর্থ হওয়া খুনি সেলিম গংদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করেন। এ সময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সূর্য সিড়ি ফাউন্ডেশনের সম্পাদক সালিম আহমেদ সালাম, নিহত ফাতেমার, বাবা বাবুল, মা সাহিদা বেগম, স্বামী আব্দুল সামাদ, ছেলে হাফেজ মোঃ আবু বক্করসহ নিহতের অন্য স্বজন ও সূর্য সিড়ি ফাউন্ডেশনের সদস্যরা।

উল্লেখ্য, গত ২৬ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার জিয়ানগর এলাকায় দুর্বৃত্তদের হাতে ফাতেমা আক্তার বাবলী নামে এক গৃহবধূ হয় । জিয়ানগর এলাকার নিজ বাসা থেকে নিহতের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ। নিহত ফাতেমা ঢাকার কামরাঙ্গীচর থানার চর আলীনগর এলাকার মোঃ বাবুল এর বড় মেয়ে। নিহতের এক ছেলে মাদ্রাসায় লেখাপড়া করে ও স্বামী কেরানীগঞ্জের খোলামোড়া বাজারে ডিমের ব্যবসা করেন।