উত্তরখানে ছায়াপথ ক্লিনিকে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বাকে মেরে গুম করার চেষ্টা; বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার!

শাকিবুল হাসানঃ  রাজধানীর উত্তরখান থানাধীন বালুর মাঠ এলাকায় অবস্থিত ছায়াপথ ক্লিনিকের বিরুদ্ধে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা  এক মহিলাকে মেরে লাশ গুম করার অভিযোগ উঠেছে।

সুত্রে জানাযায,  গত ৩ জুলাই মালা রানী দাস (২৫) নামের পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা মহিলা তার স্বামী গোপাল দাসকে ছায়াপথ ক্লিনিকে  চিকিৎসা করবেন বলে বাসা থেকে বের হন। এরপর মালা রানী ওই ক্লিনিকে গেলে  ক্লিনিকের মালিক হাসিনা রুগীর অবস্থা খারাপ বলে নিজের বাসায় নিয়ে যান। বাসায় নিয়ে মালা রানীর শরীরে সেলাইন ও ইনজেকশন পুশ করে গর্ভে থাকা বাচ্চা বের করার চেষ্টা করেন। এতে মালা রানীর শরীর থেকে অতিরিক্ত রক্ষক্ষরণ হলে তার মৃত্যু হয়।

পরে ক্লিনিক মালিক হাসিনা ও তার স্বামী গোলাম রব্বানী বিষয়টি ধামাচাপা দিতে একটি বস্তায় ভরে মালা রানীর লাশটি পাশের ডোবায় ফেলে দেন।

ওই ঘটনার দুই দিন পর ৫ জুলাই মালা রানীর স্বামী গোপাল দাস উত্তরখান থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর পুলিশ সেই জিডির সূত্র ধরে মালা রানীকে খুঁজতে থাকেন। অবশেষে ওই ডোবা থেকে তার গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়।   এর আগেও এই দম্পতির হাতে অনেক রুগী মারা যাওয়ার অভিযোগ র‍য়েছে।

উত্তরখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন বলেন, মালা রানী দাস পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।এ ঘটনায় হাসিনা ও তার স্বামী গোলাম রব্বানীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ঘটনাটির কোনো ক্লু ছিল না। তারপরও পুলিশ ওই নারীর লাশ উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে । এ ঘটনায় দায়ের করা জিডিটি এখন মামলায় রুপান্তর করা হচ্ছে।